বুধবার , ফেব্রুয়ারি ২১ ২০২৪
Home / সারা দেশ / কুড়িগ্রামে ছাতা মাথায় দিয়ে পাঠদান করছেন শিক্ষার্থীরা

কুড়িগ্রামে ছাতা মাথায় দিয়ে পাঠদান করছেন শিক্ষার্থীরা

আলমগীর হোসাইন, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ
কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার শিবের বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টির টিনের চাল ফুঁটো থাকায় এই বর্ষার সময় বৃষ্টির পানি পড়ছে শ্রেণী কক্ষে। গত দুই ধরে দিন ব্যাপী ভারী বৃষ্টিপাত কারণে শিক্ষার্থীরা শ্রেণী কক্ষে ছাতা মাথায় দিয়ে পাঠদান করছে। এতে করে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন শিক্ষক, শিক্ষার্থীসহ অভিভাবকগণ।
সরেজমিনে মঙ্গলবার স্কুলে গিয়ে দেখা গেছে একটি নতুন ভবন থাকার পড়েও তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণীর শিক্ষার্থীরদের পুরাতন আধাঁপাঁকা টিনসেডের কক্ষে পাঠদান পরিচালনা করছেন শিক্ষকগণ। পুরাতন টিনসেড কক্ষেই টিনের চালার ফুটো দিয়ে বৃষ্টির সময় পানি প্রবেশ করে শ্রেণী কক্ষে। এতে করে অনেকটাই বাধ্য হয়ে ছাতা মাথায় দিয়ে ক্লাস করছে শিক্ষার্থীরা।
চতুর্থ শ্রেণীর আলামিন, আরিফুল ইসলাম ও মিতু খাতুনসহ অনেকে শিক্ষার্থী বলেন,টিনের চাল ফুঁটা থাকার কারণে শ্রেণী কক্ষে বৃষ্টির পানি পড়ায় আমরা গত দুই দিন ধরে ছাতা মাথায় দিয়ে ক্লাস করছি। ছাতা মাথায় দেওয়ার পড়েও পানি পড়ে বই খাতা ও পোষাক ভিজে যায়। এরপরেও আমরা বৃষ্টিতে ভেঁজে শ্রেণী কক্ষে ক্লাস করছি।
শিক্ষার্থীরা দ্রুত স্কুলটির পুরাতন টিনসেড শ্রেণী কক্ষের সংস্কারের দাবী করে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক পি,ভি রুনী সাঈদা বেগম জানান, আমার এক বছর হল এ বিদ্যালয় আসার। গত বছর ধরে পুরাতন টিনসেড ঘরের সংস্কারের জন্য কর্তৃকপক্ষের কাছে আবেদন করেছি। কিন্তু এখনও কোন সুফল পাইনি। তাই বাধ্য হয়ে বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা এই বৃষ্টির মধ্যেও ক্লাস নিতে হতে হচ্ছে।
বইখাতাসহ নিজেরা যেন ভিজে না যায় সেজন্য ক্লাসে অনেকেই বাড়ি থেকে ছাতা নিয়ে এসে ক্লাস করছে। তিনি আরো বলেন,উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার রাশেদুল ইসলাম মন্ডল বিদ্যালয় পরিদর্শনে এসে পুরাতন টিনসেড রুমে ক্লাস না নেওয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছে এবং তিনি আরও জানিয়েছেন প্রাক-প্রাথমিক বরাদ্দের টাকা দিয়ে খুব শীঘ্রই কক্ষ দুটি সংস্কারের জন্য নির্দেশ দেন। বরাদ্দ আসলে রুম দুইটি সংস্কার করা হবে।
উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার রাশেদুল ইসলাম মন্ডল বলেন, খবর পেয়ে মঙ্গলবার দুপুরে বিদ্যালয়টিতে যাই। পরে দেখি নতুন ভবনের রুম থাকার পড়েও প্রধান শিক্ষক নিজেই শিক্ষার্থীদের পুরাতন টিনসেডের শেওণী কক্ষে ক্লাস করাচ্ছেন। আর নতুন ভবনের রুমে স্টোর রুম করেছেন প্রধান শিক্ষক। ফলে পুরাতন দুই শ্রেণী কক্ষে শিক্ষার্থীরা ছাতা মাথায় দিয়ে পাঠদান করছে। পরিদর্শনে গিয়ে পুরাতন টিন সেডের ঘরে পাঠদান না করার জন্য প্রধান শিক্ষককে নিষেধ করা হয়েছে এবং দ্রুত ক্ষতিগ্রস্থ শ্রেণী কক্ষ গুলো সংস্কারের ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

About admin

Check Also

রংপুরে আইএফআইসি ব্যাংকের প্রতিবেশী উৎসব উদযাপিত

রেখা মনি, বিশেষ প্রতিনিধি (রংপুর): রংপুরে আইএফআইসি ব্যাংকের প্রতিবেশী উৎসব উদযাপিত হচ্ছে। গত বুধবার বিকালে …

কাউনিয়ায় নাজিরদহ একতা উচ্চ বিদ্যালয়ের এস এস সি পরীক্ষার্থীর বিদায়

আব্দুল কুদ্দুস বসুনিয়া, বিশেষ প্রতিনিধিঃ কাউনিয়ার নাজিরদহ একতা উচ্চ বিদ্যালয়ের এস এস সি পরীক্ষার্থীদের বিদায় …

কুড়িগ্রামে ১০ দিনব্যাপী বিসিক উদ্যোক্তা মেলার উদ্বোধন

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি,  কুড়িগ্রামে অধিকসংখ্যক উদ্দ্যোক্তা তৈরির লক্ষ্যে জেলা আউটার স্টেডিয়াম সংলগ্ন স্বাধীনতার বিজয় স্তম্ভের সামনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *