বৃহস্পতিবার , অক্টোবর ৬ ২০২২
Home / জাতীয় / ত্রিমোহিনী-বোনারপাড়া রুটে ১২ দিন ট্রেন বন্ধ ***

ত্রিমোহিনী-বোনারপাড়া রুটে ১২ দিন ট্রেন বন্ধ ***

গাইবান্ধার ডাউন স্টেশন ত্রিমোহিনী-বাদিয়াখালী-বোনারপাড়া পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে প্রায় ১ হাজার ফুট রেলপথ মারাক্তকভাবে ধসে গেছে। এছাড়াও বিভিন্ন স্থানে সৃষ্ট গর্তে বন্যার পানি জমে রয়েছে। ফলে গত ১৬ জুলাই থেকে টানা ১২ দিন লালমনিরহাট-সান্তাহার রুটে রাজধানী ঢাকার সাথে সরাসরি ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে। ফলে উত্তরাঞ্চলের যাত্রীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

এদিকে শনিবার বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক মো. শামসুজ্জামান গাইবান্ধা থেকে বোনারপাড়া জংশন পর্যন্ত ক্ষতিগ্রস্ত লাইন পরিদর্শন করেন। পরে গাইবান্ধা রেলওয়ে স্টেশনে সাংবাদিকদের বলেন, পুনঃরায় বন্যা বা বৃষ্টি না বাড়লে ঈদের আগেই উত্তরাঞ্চলের সাথে লালমনিরহাট-সান্তাহার রুটে রেল যোগাযোগ পুনঃস্থাপিত করা হবে। ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাগুলো দ্রুত মেরামত করা হবে।

রেল লাইন মেরামত না হওয়া পর্যন্ত বিকল্প ব্যবস্থা হিসেবে রংপুর থেকে গাইবান্ধা পর্যন্ত রংপুর এপপ্রেস প্রসারিত করে পার্বর্তীপুর হয়ে ঢাকা পর্যন্ত চলাচল করানো যায় কিনা সে ব্যাপারে তিনি বলেন, বিষয়টি বিবেচনায় নেওয়া হবে।

বর্তমানে লোকাল এবং মেইল ট্রেন গাইবান্ধা থেকে বোনারপাড়া পর্যন্ত ট্রানজিট পদ্ধতিতে চলাচল করছে। লালমনিরহাট ও দিনাজপুর থেকে ডাউন ট্রেনগুলো গাইবান্ধা স্টেশন পর্যন্ত চলাচল করছে। অপরদিকে সান্তাহার জংশন থেকে বোনারপাড়া পর্যন্ত মেইল ও লোকাল ট্রেনগুলো চলাচল করছে। এছাড়া আন্তঃগর লালমনি এপপ্রেস ও রংপুর এপপ্রেস ট্রেন দুটি পার্বর্তীপুর-সান্তাহার হয়ে ঢাকায় যাতায়াত করছে।

About admin

Check Also

৭৬ নবজাতকের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা উপহার দিল সেচ্ছাসেবক লীগ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মদিন উপলক্ষে ৭৬ জন নবজাতক এবং তাদের মায়েদের মাঝে বঙ্গবন্ধু কন্যার …

সীমান্ত দিয়ে কাউকেই প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, বাংলাদেশের সীমান্ত দিয়ে কাউকে ঢুকতে দেওয়া হবে না। আরাকান আর্মি, …

তত্ত্বাবধায়ক চিন্তা মাথা থেকে নামিয়ে ফেলুন: কাদের

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের চিন্তা মাথা থেকে নামিয়ে ফেলতে বিএনপি’র প্রতি আহবান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *