বৃহস্পতিবার , আগস্ট ১১ ২০২২
Home / সারা দেশ / বঙ্গপোসাগরে ৫ ঘণ্টার রুদ্ধশ্বাস লড়াই, প্রাণে বাঁচলেন ৩ মৎসজীবী **

বঙ্গপোসাগরে ৫ ঘণ্টার রুদ্ধশ্বাস লড়াই, প্রাণে বাঁচলেন ৩ মৎসজীবী **

নৌকোডুবির পর সমুদ্রে ৫ ঘণ্টার রুদ্ধশ্বাস লড়াই করে কোনোভাবে প্রাণে বাঁচলেন ৩ মৎসজীবী। এ ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের সমুদ্রে।

খবর বলা হয়েছে, গত রবিবার ভোরে শঙ্করপুর থেকে ইঞ্জিনচালিত বোটে করে সমুদ্রে মাছ ধরতে গিয়েছিলেন পূর্ব মোদিনীপুরের ৫ মৎস্যজীবী। দুর্ভাগ্যক্রমে শঙ্করপুর থেকে ১০ নটিক্যাল মাইল দূরে তাদের বোটটি খারাপ হয়ে যায়। শুধু তাই নয়, ঢেউয়ের তোড়ে ফুটো হয়ে বোটটি ডুবেও যায়। তখন বাজে সন্ধ্যা ৭টা। তার পর থেকেই বাঁচার চেষ্টায় লড়াই শুরু করে তিন মৎসজীবী। এ সময় বোট ডুবে যাচ্ছে দেখে অপর দুই মৎস্যজীবী সমুদ্রে ঝাঁপ দিয়ে দূরে একটি ট্রলারের আলো দেখে এগিয়ে যান।

তবে বোট হারিয়ে তেলের খালি ব্যারেল ও বাঁশ আঁকড়ে ধরে সমুদ্রে ভাসতে থাকেন ওই তিন মৎসজীবী। শেষ পর্যন্ত তারা ভাসতে ভাসতে রাত ১২টার দিকে এসে ওঠেন দীঘার ক্ষণিকা ঘাটে। পরে তাদের উদ্ধার করে দীঘা থানার পুলিশ। এদিকে অপর দুই মৎসজীবী আজ সোমবার ওয়ারলেসের মাধ্যমে পুলিশকে তাদের বেঁচে থাকার খবর জানান।

উদ্ধার হওয়া মৎসজীবী হলেন-চিংড়া ভূপতিনগরের শুকদেব মাঝি ও উত্তর ডিহিবাড়ের বিকাশ দাস ও নন্দকুমার নন্দ।

এর আগে জুলাই মাসে বঙ্গপোসাগরে মাছ ধরতে গিয়ে মাঝ সমুদ্রে ট্রলার উল্টে যাওয়ার ঘটনা ঘটে। ৫ দিন ভেসে থাকার পর জীবনযুদ্ধে জিতে বাড়ি ফিরেছিলেন দক্ষিণ ২৪ পরগনার মত্সজীবী রবীন্দ্রনাথ দাস। খাবার, পানি এমনকি লাইফ জ্যাকেট ছাড়াই ৫ দিন সমু্দ্রে বেঁচেছিলেন তিনি।
সূত্র : জি নিউজ

About admin

Check Also

জ্বালানি তেলসহ দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে কুড়িগ্রামে সড়ক অবরোধ করে জাতীয় পার্টির বিক্ষোভ সমাবেশ

মোঃ শের আলী, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ জ্বালানি তেল, ডিজেল, অকটেন, পেট্রোল ও কৃষি সারসহ সকল নিত্যপ্রয়োজনীয় …

জমি লিখে না দেয়ায় পিটিয়ে মায়ের হাত ভেঙে দিলেন সন্তান

মোঃ শের আলী,কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রামে জমি লিখে না দেয়ায় পিটিয়ে মায়ের হাত ভেঙে দেয়ার অভিযোগ …

চিলমারীতে পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার সার্বিক মানোন্নয়নের উদ্দেশ্যে শিক্ষক-অবিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত

আলমগীর হোসাইনঃ শিক্ষার সার্বিক মানোন্নয়নের উদ্দেশ্যে বিশেষ করে পরীক্ষার্থী ও অপেক্ষাকৃত দুর্বল শিক্ষার্থীদের জন্য গৃহিত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *