বুধবার , নভেম্বর ৩০ ২০২২
Home / জাতীয় / শুদ্ধি অভিযান সফল করতে হবে: পরশ **

শুদ্ধি অভিযান সফল করতে হবে: পরশ **

যুবলীগের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান অধ্যাপক শেখ ফজলে শামস পরশ সংগঠনের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বলেছেন, এখন নতুন চ্যালেঞ্জ হচ্ছে শুদ্ধি অভিযান। এই অভিযান সফল করতে হবে। যুবলীগের ত্যাগী কর্মীরাও এটা চান। চাঁদাবাজি ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে চলমান অভিযানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সফল হবেন বলেই আমাদের বিশ্বাস।

বুধবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউর যুবলীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে নেতাকর্মীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে শেখ ফজলে শামস পরশ এসব কথা বলেন। গত ২৩ নভেম্বরের সপ্তম জাতীয় কংগ্রেসে যুবলীগের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর পরশ প্রথমবারের মতো যুবলীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আসেন। তার সঙ্গে সংগঠনের নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিলও ছিলেন। এ সময় কেন্দ্রীয় ও মহানগর নেতারা সংগঠনের শীর্ষ দুই নেতাকে ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত করেন।

হলি আর্টিসানে জঙ্গি হামলার রায় প্রসঙ্গে পরশ বলেন, হলি আর্টিসানে জঙ্গি হামলার বিচার মাত্র তিন বছরের মধ্যে শেষ হয়েছে। এতে বোঝা যায়, জঙ্গি দমনের বিষয়ে আওয়ামী লীগ সরকার কতটা ‘সিরিয়াস’।

আগামী ৪ ডিসেম্বর যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শেখ ফজলুল হক মনির জন্মদিন দেশব্যাপী পালনের ঘোষণা দিয়ে তিনি বলেন, যুবলীগ তার বাবা শেখ ফজলুল হক মনির হাতে গড়া সংগঠন।

এই সংগঠনে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনাই তার প্রধান কাজ। নেতাকর্মীদের ভালোবাসা পেয়ে তিনি বিস্মিত, কৃতজ্ঞ। চেয়ারম্যান নয়, যুবলীগের একজন কর্মী হিসেবেই কাজ করতে চান তিনি।

যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল বলেন, যুবলীগে কোনো চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসী, টেন্ডারবাজ ও মাদকাসক্ত ব্যক্তির স্থান হবে না।

এ সময় আরও বক্তব্য দেন যুবলীগের সদ্য সাবেক সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশীদ। উপস্থিত ছিলেন অ্যাডভোকেট বেলাল হোসাইন, অ্যাডভোকেট মোতাহার হোসেন সাজু, মহিউদ্দিন আহম্মেদ মহি, মঞ্জুর আলম শাহিন, অ্যাডভোকেট মামুনুর রশীদ, বদিউল আলম, ফজলুল হক আতিক, আবু আহম্মেদ নাসিম পাভেল, তাজউদ্দীন আহমেদ, জাকির হোসেন বাবুল, ইসমাইল হোসেন, মাইনুদ্দিন রানা, রেজাউল করিম রেজা প্রমুখ।

শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে বিশৃঙ্খলা-ধাক্কাধাক্কি : এর আগে দুপুর সাড়ে ১২টায় নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান অধ্যাপক শেখ ফজলে শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এলে তাদের সঙ্গে সেলফি ও ছবি তুলতে হুড়োহুড়ি শুরু করেন নেতাকর্মীরা। এতে সেখানে বিশৃঙ্খল পরিবেশ সৃষ্টি হয়। ঘটে ধাক্কাধাক্কির ঘটনাও।

এ সময় কেন্দ্রীয় নেতারা বারবার মাইকে শৃঙ্খলা বজায় রাখার কথা বললেও কোনো কাজে আসেনি। এই বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির মধ্যে উপস্থিত কয়েকজন সাংবাদিকও হেনস্তার শিকার হন।

About admin

Check Also

নৌযান শ্রমিকদের ধর্মঘট প্রত্যাহার

মজুরি বাড়ানোর দাবিতে ডাকা সারা দেশে চলমান নৌ ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হয়েছে। সোমবার (২৮ নভেম্বর) …

শর্তসাপেক্ষে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের অনুমতি পাবে বিএনপি

শর্তসাপেক্ষে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপি সমাবেশের অনুমোদন পাবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। বৃহস্পতিবার এ কথা …

২০২৪ সালেই শেষ হবে “হাটিকুমরুল ইন্টারচেঞ্জ” বদলে যাবে উত্তরবঙ্গের যোগাযোগ ব্যবস্থা

সিরাজগঞ্জের মহাসড়ক চার লেনে উন্নীতকরণের পাশাপাশি হাটিকুমরুল গোলচত্বর এলাকায় ৭৪৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হচ্ছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *