শুক্রবার , ফেব্রুয়ারি ৩ ২০২৩
Home / জাতীয় / শার্শায় যথাযোগ্য মর্যাদায় বিজয় দিবস পালিত **

শার্শায় যথাযোগ্য মর্যাদায় বিজয় দিবস পালিত **

যশোরের শার্শায় যথাযোগ্য মর্যাদায় বিজয় দিবস পালিত হয়েছে। বিজয় দিবস উপলক্ষে সোমবার শার্শার কাশিপুরে বীরশ্রেষ্ঠ ল্যান্স নায়েক নূর মোহাম্মদ শেখের সমাধিতে সূর্য উঠার সাথে সাথে যশোর ৪৯ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পক্ষ থেকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় গার্ড অব অনার প্রদানের মাধ্যমে দিনটি শুরু হয়। এসময় গার্ড অব অনার প্রদান করেন ৪৯ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল সেলিম রেজা।

পরে বীরশ্রেষ্ঠ ল্যান্স নায়েক নূর মোহাম্মদ শেখের সমাধিতে যশোর-১ (শার্শা) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিন শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এরপর শার্শা উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে উপজেলা চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল হক মঞ্জু ও নির্বাহী কর্মকর্তা পুলক কুমার মন্ডল, সরকারী বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ ডিগ্রী কলেজের পক্ষ থেকে প্রফেসর আমিনুল ইসলাম, শার্শা থানার পক্ষ থেকে অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আতাউর রহমান, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, রাজনৈতিক সংগঠন, কলেজ, বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধাঞ্জলি প্রদান করেন। পরে শার্শা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পুলক কুমার মন্ডলের সভাপতিত্বে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন, সংসদ সদস্য আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিন। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, উপজেলা চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল হক মঞ্জু। আলোচনা সভাশেষে এক দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। উক্ত দোয়া অনুষ্ঠানে দোয়া পরিচালনা করেন বীরশ্রেষ্ঠ ল্যান্স নায়েক নূর মোহাম্মদ শেখের  জানাজা পড়ানো মাওলানা হাবিবুর রহমান।

অনুষ্ঠানে বীরশ্রেষ্ঠ ল্যান্স নায়েক নূর মোহাম্মদ শেখের পুত্রবধূ আনোয়ারা মোস্তফা, নাতিন কামিনী আফরোজ ও তার ছেলে মিনহাজুল হোসাইন মেয়ে জারার হাতে শুভেচ্ছা উপহার তুলে দেন সংসদ সদস্য আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিন। অপরদিকে, বেনাপোলে বিভিন্ন রাজনৈতিক সংগঠন, সামাজিক সংগঠন ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে বিজয় র‌্যালি নিয়ে কাগজ পুকুর স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। পরে নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানে দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।  সকাল ৯টায় উপজেলা শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম মাঠে পুলিশ প্রশাসনসহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অংশগ্রহনে কুচকাওয়াজ ও মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক বিভিন্ন প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শিত হয়। বেনাপোল কাস্টম হাউজে স্থাপিত জাতীয় স্মৃতিস্তম্ভে পুস্পস্তবক করেন কাস্টমের অতিরিক্ত কমিশনার ড. মো. নেয়ামুল ইসলাম। এর আগে রাত ১২টা ১ মিনিটে উপজেলা পরিষদের আয়োজনে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসের শুভসূচনা হয়। পরে সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে উপজেলার সব সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। বিকালে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আলোচনা সভা ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।

About admin

Check Also

সাংবিধানিক প্রক্রিয়া ব্যাহত হয় এমন কোনো উদ্ভট ধারণাকে প্রশ্রয় দেবেন না

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাংবিধানিক প্রক্রিয়া ব্যাহত হয় এমন কোনো উদ্ভট ধারণাকে প্রশ্রয় এবং ইন্ধন না …

উন্নয়ন প্রকল্পগুলো শেষ করাই নতুন বছরের চ্যালেঞ্জ: আইনমন্ত্রী

আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, আমরা জনগণকে দেশের উন্নয়নের অঙ্গীকার করেছিলাম। …

রাজনৈতিক নয়, কূটনীতি হবে অর্থনৈতিক: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্থানীয় শিল্পকে আরও কার্যকর করতে দেশীয় বাজার সম্প্রসারণ এবং জনগণের ক্রয়ক্ষমতা বৃদ্ধির …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *