শনিবার , জুলাই ২০ ২০২৪
Home / জাতীয় / নির্বাচনী ইশতেহার বাস্তবায়নই নতুন কমিটির চ্যালেঞ্জ: ওবায়দুল কাদের **

নির্বাচনী ইশতেহার বাস্তবায়নই নতুন কমিটির চ্যালেঞ্জ: ওবায়দুল কাদের **

দলের নির্বাচনী ইশতেহার বাস্তবায়নই নতুন কমিটির জন্য চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে পুনর্নির্বাচিত সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। একই সঙ্গে তিনি দলকে স্মার্ট ও সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী হিসেবে গড়ে তোলার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন।

শনিবার বিকেলে দলের সাধারণ সম্পাদক পদে টানা দ্বিতীয়বারের মতো নির্বাচিত হওয়ার পরপরই দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনার ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে গিয়ে এসব কথা বলেন তিনি।

এসময় তার সঙ্গে ছিলেন নতুন কমিটির সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সবুর ও দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ূয়া প্রমুখ। নতুন কমিটির সাধারণ সম্পাদক হিসেবে ভবিষ্যত পরিকল্পনা তুলে ধরতে গিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে একটি শক্তিশালী টিম ওয়ার্ক গড়ে তুলতে হবে। ট্রেডিশনের সঙ্গে টেকনোলজি, আইডিয়ালিজমের সঙ্গে রিয়েলিজম, ফেইথের সঙ্গে মোরালিটি এগুলোর সমন্বয় করে করে ভিশন-২১ আপাতত আমাদের লক্ষ্য। ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচনী ইশতেহার দিয়েছেন নেত্রী শেখ হাসিনা। জনগণের কাছে তিনি অঙ্গীকার করেছেন, প্রত্যেক পরিবারে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করবেন। সেই প্রতিশ্রুতি পূরণ করা হবে। এগুলো তাদের সামনে চ্যালেঞ্জ।

তিনি বলেন, মূল ফোকাস মুজিববর্ষের বিশাল কর্মসূচি সঠিকভাবে বাস্তবায়ন করা। এটা একটা বিরাট দায়িত্ব। এছাড়া ভিশন-২০২১ ও ডেল্টাপ্ল্যান বাস্তবায়নও তাদের চ্যালেঞ্জের মধ্যে পড়ে। দ্বিতীয় মেয়াদে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ায় দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি অপরিসীম কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে তিনি বলেন, একই সঙ্গে তার আরেকজন শুভাকাঙ্ক্ষী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ রেহানার কাছেও তিনি কৃতজ্ঞ। পাশাপাশি দলের সাড়ে সাত হাজার কাউন্সিলরের প্রতিও তিনি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, এই নিয়ে তাদের নেত্রী শেখ হাসিনা টানা নবমবারের মতো সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি ছাড়া এই পার্টিতে কেউ অপরিহার্য নন। তিনি যেতে চাইলেও আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা তাকে যেতে দেবেন না। আগামী দু’য়েক দিনের মধ্যে দলীয় সভানেত্রী ও সভাপতিমণ্ডলীর সদস্যদের সঙ্গে আলাপ করে পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হবে। আওয়ামী লীগের ২১তম সম্মেলনে প্রত্যাশার পূরণ হয়নি’- বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এই মন্তব্যের জবাবে কাদের বলেন, তারা তো এটা বলবেনই। যিনি এই কথা বলেন মির্জা ফখরুল সাহেব, তিনি তো আমারও এক বছর আগে মহাসচিব হয়েছেন। এখন এটা তাদের কতো বছরের কমিটি সেটা কেউ বলতে পারেন না। কবে হবে তাদের জাতীয় কাউন্সিল। তাদের জেলা সম্মেলন হয়েছে, এটা আমরা গত দশ বছরেও দেখিনি।

About admin

Check Also

দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা ভোটের মাঠে ১৫৭ ম্যাজিস্ট্রেট

ষষ্ঠ উপজেলা নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপের ভোটে ১৫৭ বিচারিক ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। ইসির …

এডিপিতে সর্বোচ্চ বরাদ্দ পাওয়া ১০ মন্ত্রণালয়

২০২৪-২৫ অর্থ বছরের জন্য ২ লাখ ৬৫ হাজার কোটি টাকার ব্যয় সম্বলিত বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির …

ধানমন্ডি ট্রাফিক জোনের কঠোর তৎপরতায় মিরপুর রোড় এখন রিক্সা মু্ক্ত,জনমতে স্বস্তি

রাজধানীর অন্যতম ব্যস্ততম ও গুরুত্বপূর্ন সড়ক মিরপুর সড়ক। গুরুত্ব বিবেচনায় এটি রাজধানীর অন্যতম প্রধান সড়ক। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *