রবিবার , ফেব্রুয়ারি ১৮ ২০২৪
Home / সারা দেশ / আশুলিয়ায় পরিবহন শ্রমিকদের মারধরের অভিযোগে আটক ২ **

আশুলিয়ায় পরিবহন শ্রমিকদের মারধরের অভিযোগে আটক ২ **

রাজধানী ঢাকার অদূরে আশুলিয়ায় পরিবহনে চাঁদাবাজি, চাঁদা না পেলে পরিবহন শ্রমিকদের মারধর ও টাকা ছিনিয়ে নেওয়া সহ নানা অভিযোগে দুই চিহ্নিত চাঁদাবাজকে আটক করেছে পুলিশ। আটক চাদাবাজ ঢাকা জেলা যুবদলের নেতা ডেন্ডাবর এলাকার আইয়ুব খানের ঘনিষ্ঠসহচর বলে জানান এলাকাবাসী।

বৃহস্পতিবার রাতে আশুলিয়ার পৃথক স্থান থেকে তাদের আটক করে পুলিশ। এর আগে সকালে শতাব্দী পরিবহনের স্বত্বাধিকারী মো. স্বপন এঘটনায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন।                                                                                                                                                                                            আটকেরা হলেন- আশুলিয়ার ডেন্ডাবর এলাকার আব্দুল মালেকের ছেলে জিএম মিন্টু (৩০) ওরফে ওয়েলকাম মিন্টু ও অপরজন আশুলিয়ার গাজীরচটের নালিজার মোড় এলাকার মো. সাইফুল (৩৩)।                                                                                                                                           অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, স্বপন মিয়ার মালিকানাধীন শতাব্দী পরিবহনটি আশুলিয়ার নবীনগর থেকে বাইপাইল হয়ে রাজধানীর মতিঝিল এলাকায় চলাচল করে। কিন্তু বেশ কিছুদিন ধরে পরিবহনটির চলাচলে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে আসছিল মিন্টু ও তার বাহিনী। পরে আজ সকালে পরিবহনের স্বত্তাধিকারী মো. স্বপন চারজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা ২০-২৫ জনের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত  অভিযোগ করেন।

আশুলিয়া থানার ওসি (তদন্ত) জাবেদ মাসুদ জানান, পরিবহনে চাঁদাবাজির অভিযোগে দুই জনকে আটক করা হয়েছে। এঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।                                                                                                                                                                            জানা যায়, জিএম মিন্টু এলাকায় একজন চিহ্নিত পরিবহন চাঁদাবাজ হিসেবে পরিচিত। ওয়েলকাম, লাব্বাইক, মৌমিতা, এম লাভলী ও ঠিকানাসহ প্রায় ১০টি পরিবহন থেকে মোটা অঙ্কের চাঁদা আদায় করে মিন্টু। এজন্য তার রয়েছে ২৫-৩০ জনের একটি চাঁদাবাজ বাহিনী। একসময় মিন্টু নিজেকে ছাত্রদলের নেতা ও ঢাকা জেলা জাতীয়তাবাদী যুবদলের নেতা আইয়ুব খানের ঘনিষ্ঠসহচর হিসেবে এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের পর থেকে সে পরিবহনে চাঁদাবাজির সাথে যুক্ত হয়। পরবর্তীতে আওয়ামী লীগ নেতাদের ছত্রছায়ায় দীর্ঘদিন ধরে পরিবহনে চাঁদাবাজি করতে থাকে সে।

About admin

Check Also

রংপুরে আইএফআইসি ব্যাংকের প্রতিবেশী উৎসব উদযাপিত

রেখা মনি, বিশেষ প্রতিনিধি (রংপুর): রংপুরে আইএফআইসি ব্যাংকের প্রতিবেশী উৎসব উদযাপিত হচ্ছে। গত বুধবার বিকালে …

কাউনিয়ায় নাজিরদহ একতা উচ্চ বিদ্যালয়ের এস এস সি পরীক্ষার্থীর বিদায়

আব্দুল কুদ্দুস বসুনিয়া, বিশেষ প্রতিনিধিঃ কাউনিয়ার নাজিরদহ একতা উচ্চ বিদ্যালয়ের এস এস সি পরীক্ষার্থীদের বিদায় …

কুড়িগ্রামে ১০ দিনব্যাপী বিসিক উদ্যোক্তা মেলার উদ্বোধন

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি,  কুড়িগ্রামে অধিকসংখ্যক উদ্দ্যোক্তা তৈরির লক্ষ্যে জেলা আউটার স্টেডিয়াম সংলগ্ন স্বাধীনতার বিজয় স্তম্ভের সামনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *