শুক্রবার , জানুয়ারি ২১ ২০২২
Home / জাতীয় / নির্বাচনের তারিখ পেছানোর দাবি নির্বাচন কমিশনে জরুরি বৈঠক

নির্বাচনের তারিখ পেছানোর দাবি নির্বাচন কমিশনে জরুরি বৈঠক

সরস্বতী পূজার জন্য আসন্ন ৩০ জানুয়ারি ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ভোটগ্রহণের দিন বদলের দাবির মধ্যে জরুরি বৈঠকে বসেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। বৈঠকে এই দুই সিটির ভোটগ্রহণের নতুন সিদ্ধান্ত আসতে পারে বলে ইসির একটি সূত্র জানিয়েছে।

শনিবার বিকাল সোয়া ৪টার দিকে রাজধানীর আগারগাঁও নির্বাচন কমিশন ভবনে এ বৈঠক শুরু হয়। দুপুরের পর ইসির জনসংযোগ শাখা জানায়, নির্বাচন কমিশনারদের ফোন করে বৈঠকে আসার জন্য বলা হয়। এরপর এই বৈঠক শুরু হয়।

সকালে নির্বাচন ভবনে গেলেও দুপুরের দিকে বেরিয়ে যান প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা ও ইসি রফিকুল ইসলাম। বেরোনোর সময় রফিকুল ইসলাম নির্বাচন ভবনের ফটকে সাংবাদিকদের বলেন, পরিস্থিতি বিবেচনায় কমিশন সিদ্ধান্ত নিলে নির্বাচন পেছাবে।

৩০ জানুয়ারি সরস্বতী পূজার কারণে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোটগ্রহণের তারিখ পরিবর্তনের দাবি জানিয়ে আসছে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা। এমনকি গত বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে আমরণ অনশনেও বসেছেন শিক্ষার্থীরা। রাজনৈতিক দলগুলোও এ নিয়ে বক্তব্য দিচ্ছে। ভোট পেছানোর ক্ষেত্রে সরকার বা আওয়ামী লীগের কোনো আপত্তি নেই বলে জানিয়ে দিয়েছেন ক্ষমতাসীন দলের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরও।

ভোট পেছানোর দাবির বিষয়টি আদালত পর্যন্তও গড়িয়েছে। ভোটগ্রহণ পেছানোর নির্দেশনা চেয়ে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে আবেদন করা হয়েছে। যদিও এ আপিলের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে কমিশন প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন ইসির আইনজীবী ব্যারিস্টার ড. মোহাম্মদ ইয়াসিন খান।

About admin

Check Also

ওয়ারীতে যাত্রীকে বাস থেকে ফেলে হত্যার অভিযোগ

রাজধানীর ওয়ারী থানার জয়কালী মন্দির এলাকায় মো. ইরফান (৪৮)  নামে এক যাত্রীকে বাস থেকে ফেলে …

এক দিনেই শনাক্ত ১১ হাজারের কাছাকাছি

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে …

আবারও ভার্চুয়ালি শুরু হল সুপ্রিম কোর্টের বিচারকাজ

করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সুপ্রিম কোর্টের আপিল ও হাইকোর্ট বিভাগে আবারও ভার্চুয়াল উপস্থিতির মাধ্যমে শুরু …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *