শনিবার , এপ্রিল ১৩ ২০২৪
Home / সারা দেশ / ঝালকাঠিতে ভাষা সৈনিক লাইলি বেগমের বাড়িতে হামলার অভিযোগ

ঝালকাঠিতে ভাষা সৈনিক লাইলি বেগমের বাড়িতে হামলার অভিযোগ

করোনা আতঙ্কে জেলা জনজীবন থমকে গেলেও থমকে থাকেনি ঝালকাঠি উপজেলা ছাত্রলীগ যুগ্মসম্পাদক মাইনুল ইসলামসহ তার সহযোগীরা। চাঁদার দাবীতে তারা শহরের পূর্বচাঁদকাঠিতে ভাষা সৈনিক লাইলি বেগমের বাড়িতে হামলা চালিয়ে তাঁর ৪ মেয়ে ও দুই নাতনীকে মারধর করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

হামলায় লাইলি বেগমের মেয়ে মুসলিমা খাতুনের একটি হাত ভেঙ্গে গেলে তাকে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যদিকে ছাত্রলীগ নেতার দাবী করোনা প্রতিরোধে নাজমা বেগমের বাড়ির সামনে পৌরকর্তৃপক্ষ জনসাধারনের হাত ধোয়ার জন্য একটি বেসিন বসালে তারা সেটি ভেঙ্গে ফেলে মিথ্যা হামলা ও চাদা দাবীর নাটক করছে। এ ঘটনায় সদ্য প্রয়াত ভাষা সৈনিক লাইলি বেগমের মেয়ে শাহিন পরভীন নাজমা বাদী হয়ে বুধবার রাতেই ঝালকাঠি থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

শাহিন পারভীন নাজমা লিখিত অভিযোগে জানায়, গত বুধবার সকালে মাঈনুল ও সুজনের নেতৃত্বে ১০/১২ জন পূর্বচাদকাঠি তাদের বাড়িতে গিয়ে এক লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে এবং রাত আটটার মধ্যে টাকা রেডি রাখতে বলে। রাত আটটার দিকে মাঈনুল, সুজন ও নান্নুর নেতৃত্বে ২০/২৫ জন সন্ত্রাসী পুনরায় নাজমার কাছে দাবিকৃত একলাখ টাকা দিতে বলে। চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় আসামীরা নাজমাদের বসত ঘরের দরজা জানালা ও বাড়ির সামনের স্টল ও দোকান ভাংচুর করে। এ সময় বাধা দিতে গেলে পিটিয়ে নাজমার বোন মুসলিমা খাতুনের একটি হাত ভেঙ্গে ফেলে। তাদের ডাকচিৎকারে স্থানীয় লোকজন ছুটে এলে হামলাকারিরা পালিয়ে যায়। এখোন সামাজিক ভাবে তাদের জব্দ করতে সদর উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্নসম্পাদক মো. মাঈনুল ইসলাম ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক জিয়াউল করিম জয় ওরফে সুজন পৌরসভার বেসিন ভাঙ্গার মিথ্যা অপবাদ ছড়াচ্ছেন।

অন্যদিকে উপজেলা ছাত্রলীগ যুগ্মসম্পাদক মাইনুল ইসলাম অভিযোগ করেন, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে শাহিন পরভীন নাজমার বাড়ির সামনে পৌরসভার পক্ষ থেকে সাধারণ মানুষের হাত ধোয়ার জন্য একটি ব্যাসিন বসানো হয়। বুধবার দিনের যে কোন সময় সেটি ভেঙ্গে পাশের খালে ফেলা হয়। স্থানীয় কিছু যুবক এর জন্য নাজমার পরিবারকে দায়ী করে বেসিন ফেলে দেয়ার কারণ জানতে চাইলে শাহীন পরভীন নাজমা, তার একাধিক বোন ও বোনের মেয়েরা তাদের ওপর চড়াও হয়। এ সময় আত্মরক্ষা করতে গেলে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এতে আমাদের এক ছোট ভাই গোপাল আহত হয়।

এ বিষয়ে স্থানীয় কাউন্সিলর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাফিজ আল মাহমুদ সাংবাদিকদের জানায়, শাহীন পারভীন নাজমার মেয়ে রুপা বুধবার পৌরসভা থেকে জনস্বার্থে বসানো বেসিনটি ভেঙ্গে পাশের খালে ফেলে দেয় বলে স্থানীয়রা আমার কাছে অভিযোগ করে। এনিয়ে প্রতিবাদ করায় তাদের সাথে হাতাহাতির ঘটনা ঘটলেও চাঁদা দাবি বা হামলা ভাংচুরের ঘটনা সম্পূর্ন মিথ্যা।

এ ব্যাপারে ঝালকাঠি থানার অফিসার ইনচার্জ মো. খলিলুর রহমান বলেন, শাহীন পারভীন নাজমার একটি চাঁদাদাবি, ভাংচুর ও স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নেয়ার একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি প্রাথমিক তদন্তের জন্য এস.আই গোলাম হাফেজকে ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে। সত্যতা পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে

About admin

Check Also

চিলমারীতে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণ

চিলমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামের চিলমারীতে অসহায়, দুস্থ প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের মাঝে বিনামূল্যে হুইল চেয়ার বিতরণ করা …

চিলমারীতে বাংলাদেশ পুলিশের আয়োজনে গরীব ও দুস্থদের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ

আলমগীর হোসাইন, বাংলাদেশ পুলিশের আয়োজনে ও কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশের সহযোগিতায় পবিত্র রমজানে গরিব ও দুস্থদের …

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ভাই-বোন আটক

আমিনুল ইসলাম আহাদ, ব্রাহ্মণবাড়িয় থেকেঃ সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ব্রাহ্মণবাড়য়িায় কানরে গোপন ডভিাইসসহ ভাই-বোনকে আটক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *