সোমবার , জানুয়ারি ২৩ ২০২৩
Home / সারা দেশ / শিশু খাদিজার বাবাকে ? চাচা মোঃ আব্দুর রহিম,না ভাতিজা রাসেল ?

শিশু খাদিজার বাবাকে ? চাচা মোঃ আব্দুর রহিম,না ভাতিজা রাসেল ?

শাহ মুহাম্মদ সুমন রশিদ,বরিশাল ব্যুরোঃ

শিশু খাদিজার বাবাকে ? চাচা মোঃআব্দুর রহিম, না ভাতিজা মোঃ রাসেল, এই প্রশ্ন মা কুলসুম নানি আনোয়ারা বেগম সহ  গ্রামের সাধারণ মানুষের।

সৈয়দ মুরাদ হায়দারঃ- সুঠিয়া কাঠী গ্রামে মোঃ ফজলুল হক এর মেয়ে কুলসুম (২২)এর সাথে ভয়ভীতি দেখিয়ে
চাচা মোঃ আব্দুর রহিম (৪৮) দৈহিক সম্পর্ক গড়ে তোলে, বিষয়টি ভাতিজা মোঃ রাসেল (৩৫) জানতে পেরে কুলসুমকে ঘটনাটি প্রকাশ করে দেয়ার ভয়ভীতি দেখিয়ে তার সাথে দৈহিক সম্পর্ক গড়ে তোলে।

অনুসন্ধানে জানাযায় পিরোজপুর জেলায় স্বরুপকাঠী-নেছারাবাদ উপজেলার সুঠিয়াকাঠী ইউনিয়নে ৮ নং ওয়ার্ডের মোঃ আব্দুর রহিমের মুরগীর ফার্মে মোঃ ফজলুল হক এর পাঁচ মেয়ে দুই ছেলে সহ মোট শাত সন্তান এর মধ্যে তৃতীয় মন্তান কুলসুম (১৭) কে কাজে নেয় গত ইং ২০১৫ সালে। সেই সময় একদিন মোঃআব্দুর রহিমের স্ত্রী বাবার বাড়িতে গেলে ঐ’সুযোগে মোঃ আব্দুর রহিম কুলসুমেকে জোর করে ধর্ষণ করে কয়েক বার, পরবর্তিতে ধর্ষণের বিষয়টা মোঃ রাসেল পিতা মোঃ আব্দুল হালিম জানতে পেরে কুলসুমকে কৌশলে ভয়ভীতি দেখিয়ে তার সাথে আবৈধ্য শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। এর এক সময় কুলসুম গর্ভবতি হয়ে পোড়লে তিন মাস পর বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার জন্য, চাচা মোঃ আব্দুর রহিম ও ভাতিজা মোঃ রাসেলের বাবা মোঃ আব্দুল হালিম অর্থের লোভ দেখিয়ে একই গ্রামের ২নংওয়ার্ড বালিহারি মৃত মোঃ আলি হোসেন এর ছেলে মোঃ সেলিম (৩৫) এর সাথে বিয়ে দেয়।

পরবর্তীতে ভুক্তভগী কুলসুম বলেন ধামাচাপা দিতে মোঃ সেলিমকে যে টাকা দেয়ার কথা ছিলো সেই টাকা না পেয়ে ২০১৯ সালে মোঃ সেলিম তাকে তালাক দিলে, বিষটি নিয়ে কুলসুম মেয়ে খাদিজার পিত্রী পরিচয়ের দাবিতে স্বরুপ কাঠী থানায় গেলে, সেখানে কন্যা খাদিজা পিত্রী পরিচয়ে পেতে দেরি হয়েছে বলে কোন সুরাহা করতে নাপেরে^রুপ কাঠী থানার এক এস আই, ও এক নারি সমিতির নেত্রী ও স্থানীয় ৮ নং ওয়ার্ড মেম্বর এনামুল সাহেবের মদ্ধস্থোতায় দুই লাক্ষ টাকায় দিয়ে কুলসুম ও তার মা আনোয়ারা বেগম এর সাথে আপোষ করে।

এ বিষয়ে কুলসুমের মা আনোয়ারা বেগম বলেন, সবাই টাকা দিয়েই শেষ করতে চায় কিন্তু আমার নাতনি খাদিজার কি হবে, সে কি পরিচয় নিয়ে বাচবে, তার এখন পাঁচ বছর বয়স তাকে স্কুলে ভর্তি করতে হবে তার বাবার নাম দরকার, আমরা কি কোরবো, চাচা মোঃ আব্দুর হালিম না ভাতিজা মোঃ রাসেলের নাম কোনটা হবে আমার নাতনির বাবার নাম আমাকে বলেন স্যার।

আর যে দুই লক্ষ টাকা দিয়েছিল তার থেকে পঞ্চাশ হাজার টাকা ঐ দারোগাকে দিয়েছি, আর অন্যান্য খরচ করেছি কিছু টাকা খাদিজার নামে রাখা আছে।

এবিষয়ে ফোনে ৮নং ওয়ার্ড মেম্বর এনামুল সাহেবের কাছে যানতে চাইলে তিনি বলেন ওই মেয়ে কুলসুম খারাপ মেয়ে তার সাথে আর অনেকের সম্পর্ক আছে, আর মোঃআব্দুল রহিম ও রাসেলের বাবা এবিষয়ে বলেন দুই লক্ষ টাকা নিয়েছে এখন আবার আপনাকে দিয়ে টাকা নেয়ার ফন্দি কোরছে।

একই ইউনিয়নের বালিহারি ২নং ওয়ার্ড মেম্বর মোঃ ইদ্রিস মাষ্টার এর সাথে ফোনে যোগাযোগ করিলে তিনি বলেন আমার ওয়ার্ডের মৃত আলি হোসেনের ছেলে মোঃ সেলিম এর সাথে ৮নং ওয়ার্ডের মোঃ ফজলুল হক এর মেয়ে কুলছুমের বিয়ে হয়েছিল আবার ছাড়াছাড়ি হয়ে গেছে, আমি লোক মুখে সুনেছি ভাতিজা রাসেলের এর কথা চাচা রহিমের কথা শুনিনি তবে আমি চাই ঐ শিশু মেয়ে খাদিজা তার বাবার আধীকার পাক, যেটা হয়েছে অনেক বড় অন্যায় হয়েছে এই আপরাধে যারা যারা আছে তাদের প্রত্যেককেই আইনের আওতায় এনে বিচার করা দরকার ও শিশু খাদিজার পিত্রী পরিচয় পাইয়ে দেওয়ার ব্যাপারে আমাদের সকলের সহোযোগীতা কোরতে হবে।

মোঃ রাসেলের সাথে ফোনে যোগাযগ করিলে এই বিষয়ে কথানা বলে ফোন কেটে দেয়, পরবর্তিতে চাচা আব্দুর রহিমের সাথে ফোনে যোগাযোগ করিলে তিনি বলেন আপনি কি কোরবেন থানায় কেচ কোরবেন করেন।

About admin

Check Also

রংপুর কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন প্রি-সেলের উদ্যোগে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ

মোঃ মনিরুজ্জামান মনির,বিশেষ প্রতিনিধিঃ   রংপুর কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন প্রি-সেলের উদ্যোগে অসহায় শীতার্তদের মাঝে ভারী কম্বল …

চিলমারীতে এশিয়ান টিভি‍‍`র ১০ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন ” ১০ পেরিয়ে ১১ বর্ষে পদার্পন,সবার সাথে এশিয়ান …

কুড়িগ্রামে উদ্দীপনের উদ্যোগে প্রতিবন্ধীদের মাঝে কম্বল বিতরণ

মোঃ বুলবুল ইসলাম,কুড়িগ্রাম থেকেঃ  মাঘের শীতে কাঁপছে উত্তরের জেলা কুড়িগ্রাম। প্রচণ্ড শীতে অসহায় হয়ে পরেছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *