শনিবার , জানুয়ারি ২৮ ২০২৩
Home / ধর্ম / চিলমারীতে অষ্টমী স্নান নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে বিছিন্ন ভাবে অষ্টমী স্নান সম্পন্ন

চিলমারীতে অষ্টমী স্নান নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে বিছিন্ন ভাবে অষ্টমী স্নান সম্পন্ন

চিলমারী(কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধিঃ
করোনা ভাইরাস সংক্রমণ পতিরোধে দেশ ব্যাপী সকল প্রকার গণজমাতের উপর নিষেধাজ্ঞা থাকলেও কুড়িগ্রামের চিলমারীতে নিষেধাজ্ঞা উপক্ষো করে অষ্টমীর স্নান  সম্পন্ন করেন হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা।

করোনা পরিস্থিতিতে প্রশাসনকে ফাঁকি দিয়ে ব্রহ্মপুত্র তীরে অষ্টমী স্নান হাজারো মানুষ জমায়েত হওয়ায় উদ্বিগ্ন এলাকাবাসী।
জানা গেছে,১৯৪৫ সাল থেকে প্রতি বছর চৈত্র মাসের শুল্ক পক্ষের অষ্টমী দিনে ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ঐতিহ্যবাহী অষ্টমী স্নান  অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে।

প্রতি বছর এই দিনে নেপাল,ভুটান ও ভারতসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে ৩/৪লক্ষ পূন্যার্থীর সমাগম
ঘটে ব্রহ্মপুত্র তীরে। সে মোতাবেক ১এপ্রিল বুধবার অষ্টমী স্নান ও মেলা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল।বর্তমানে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ পতিরোধে দেশ ব্যাপী সকল প্রকার গণজমাতের উপর নিষেধাজ্ঞা থাকায় ব্রহ্মপুত্র তীরে অনুষ্ঠিতব্য অষ্টমীর স্নানের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে জেলা ও উপজেলা প্রশাসন। কিন্তু প্রশাসনিক নিষেধাজ্ঞাকে উপেক্ষা করে প্রশাসনের নজর এডিয়ে বিছিন্ন ভাবে ব্রহ্মপুত্র তীরে হাজারো পূন্যার্থী জমায়েত হয় এবং স্নান উৎসবে যোগদেয়।                                                                                                                                                            প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানাযায়,মঙ্গলবার গভীর রাত থেকে বিভিন্ন অঞ্চলের সনাতন ধর্মবলম্বী পূন্যার্থীরা ব্রহ্মপুত্র পারে সমবেত হয় এবং স্নান উৎসবে যোগ দেয়।                                                                                                                      তবে সকালে
চিলমারী থানা পুলিশ তীর্থ স্থানে সমবেত হওয়া পূন্যার্থীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।                                                        স্নান উৎসবে যোগদেয়া বিষু দাস ও বান্ধব চন্দ্র জানান, আমাদের ঐতিহ্যবাহী ও বৃহৎ একটি পর্ব অষ্টমী স্নান। যা বছরে একদিন আসে,দিনটি আমাদের জন্য পাপ মোচনের দিন, করোনার কারনে দিনটির উপরে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে প্রশাসন। তারপরও গোপনে স্নান করতে এসেছি।

বাংলাদেশ পূঁজা উদযাপন কমিটি চিলমারী শাখার সভাপতি ডাঃ সলিল কুমার সরকার জানান,পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলে এবারের অষ্টমী স্নানে ৫লক্ষাধীক পূন্যার্থীর সমাগম ঘটতো। করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে গণজমায়েতের উপর নিষেধাজ্ঞা থাকায় অষ্টমী স্নান  অনুষ্ঠিত হয়নি। তবে বিচ্ছিন্নভাবে কিছু পূন্যার্থী স্নান করেছে।

চিলমারী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আমিনুল ইসলাম বলেন, ব্রহ্মপুত্র তীরের প্রায় ৫কিঃ মিঃ এলাকাজুড়ে আমাদের টহল অব্যাহত ছিল এর মধ্যে যারা এসেছিল তাদের ঘুরে দেয়া হয়েছে।

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ ডব্লিউ এম রায়হান শাহ্ বলেন, অষ্টমী স্ননের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে গণবিজ্ঞপ্তি মাইকিং ও বিভিন্ন মিডিয়ায় প্রচার করা হয়েছে। ব্রহ্মপুত্র তীরে যাতে মানুষ জমায়েত না হয় সে ব্যাপারে চিলমারী থানার অফিসার ইনচার্জকে নজরদারী রাখতে বলা হয়েছে।

About admin

Check Also

চিলমারীতে ব্রহ্মপুত্রের পাড়ে অষ্টমীর স্নান সম্পন্ন

চিলমারী(কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধিঃ শনিবার কুড়িগ্রামের চিলমারীতে ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ঐতিহ্যবাহী অষ্টমীর স্নান ও মেলা অনুষ্ঠিত …

আজ চিলমারীতে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ঐতিহ্যবাহী অষ্টমী স্নান

গোলাম মাহবুবঃ কুড়িগ্রামের চিলমারীতে ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে আজ শনিবার শুরু হচ্ছে তিন দিন ব্যাপী হিন্দু …

শুভ মহালয়া আজ

হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গোৎসবের পুণ্যলগ্ন শুভ মহালয়া আজ। মহালয়ার দিন থেকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *