সোমবার , জুন ৫ ২০২৩
Home / সারা দেশ / খবরের ফেরিওয়ালারাই বে-খবর!

খবরের ফেরিওয়ালারাই বে-খবর!

মাহফুজার রহমান মাহফুজ,ফুলবাড়ী(কুড়িগ্রাম)সংবাদদাতাঃ প্রতিদিন ঘুম থেকে ওঠেই চায়ের কাপে চুমুক দেয়ার সাথে খবরের কাগজটা না থাকলে অনেকেরই সকালটা যেন অপূর্ণই রয়ে যায়।খবর পিয়াসুদের খবরের পিপাসা মেটাতে যারা মোরগডাকা ভোর হতে রাত অবধি সমাজ,দেশ তথা সাড়া বিশ্বের খবর পৌঁছে দেয়- বলছি সেই খবরের ফেরিওয়ালাদের কথা।যাদেরকে আমরা হকার নামেই ডাকি। রোদ, বৃষ্টি, ঝড় কিংবা শীত সবকিছুই উপেক্ষা করে ঘরে ঘরে খবর পৌঁছে দেয়াই যেন তাদের ব্রত। প্রতিদিনের ঘটনা কিংবা দুর্ঘটনা সাংবাদিকদের লেখনির মাধ্যমে খবরে রূপ নেয়। পত্রিকায় ছাপানোর পরে তা সকলের কাছে পৌঁছানোর দায়িত্ব এই হকারদের। ঘটনা,সাংবাদিক, পত্রিকা আর পাঠক প্রত্যেকের মাঝে অদৃশ্য সেতুবন্ধন অটুট রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা এই হকারদের।করোনা মহামারীতেও যারা সাড়া বিশ্বের খবর সকলের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিচ্ছে তারাই আজ বে-খবর। তবুও জীবন-জীবিকার তাগিদে করোনায় সংক্রমিত হওয়ার ঝুঁকি নিয়েই ছুটে চলেছে প্রতিনিয়তই। করোনা পরিস্থিতিতে  কেমন আছেন তারা?
 এ নিয়ে জানতে কথা হয় উপজেলার প্রবীণ সংবাদ পত্র বিক্রেতা মোঃ সোবহান মিয়ার সাথে।কেমন আছেন প্রশ্নের উত্তরে লম্বা এক দীর্ঘশ্বাস ছেড়ে জানালেন, ভাল নেই।আগে প্রতিদিন পত্রিকা বিক্রি করে গড়ে ২৫০থেকে ৩০০ টাকা আয় হতো।তা দিয়েই কোন মতে চলতো সংসার।করোনার কারণে বর্তমানে বেশির ভাগ পত্রিকাই সরবরাহ বন্ধ। ফলে প্রায় বন্ধ হয়ে গেছে রোজগারের পথ।
দীর্ঘদিন ধরে পত্রিকা বিক্রি করে জীবন সংগ্রাম চালিয়ে আসা মানুষটা বর্তমানে অসহায়।পরিস্হিতির মোকাবিলা করতে তিনি দাবি জানান সরকারি সহায়তার।
হকার এবং বর্তমান পরিস্হিতি নিয়ে কথা হয় শিশু সাহিত্যিক ও গীতিকার তৌহিদ-উল ইসলাম এর সাথে তিনি বলেন,একজন সাংবাদিক দিনে হয়তো দু’এক জায়গায় ছুটে যান খবর সংগ্রহ করতে,বার্তা সম্পাদক ঘরে বসেই তা সম্পাদনা করে ছাপিয়ে দেন,আর এই কাগজকে অসংখ্য মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দেয়ার কাজটা করেন আমাদের হকার। সুতরাং দেশের এই বৈশ্বিক মহামারীতে সংবাদ পত্রের সাথে জড়িতদের মধ্যে সবচে ঝুকিতে অবস্হান হকারদের।সবার আগে তাদের প্রতি সরকারের নজর দেয়া প্রয়োজন বলে আমি মনে করি।
ফুলবাড়ী প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক সমকালের উপজেলা প্রতিনিধি শাহিনুর রহমান শাহিন বলেন,হকার সোবহান মিয়া উপজেলায় দীর্ঘদিন ধরে হকারের পেশায় কাজ করে আসছেন।বর্তমানে পত্রিকার সরবরাহ বন্ধ হওয়ায় তিনি বেকার হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন।পরিস্থিতি মোকাবিলায় তার সরকারি সাহায্য জরুরি।
উপজেলা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক, প্রভাষক জাকারিয়া মিয়া বলেন,করোনার কারণে একদিকে পত্রিকার সরবরাহ কম অন্যদিকে অধিকাংশ প্রতিষ্ঠান বন্ধ হওয়ার হকারদের রোজগার নেই বললেই চলে।এমন পরিস্থিতিতে এ পেশার মানুষদের টিকিয়ে রাখতে তাদের সহায়তা করা প্রয়োজন।

About admin

Check Also

মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার ৬ নং বানিয়াজুরী ইউনিয়ন পরিষদের বাজেট ঘোষণা

মোঃ মহসীন খান হীরা,মানিকগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি মানিকগঞ্জের ঘিওর উপ‌জেলার বানিয়াজুরী ইউনিয়ন পরিষদের ২০২৩-২৪ অর্থবছরের বাজেট …

কাউনিয়ার নিগমানন্দ কমপ্লেক্সের উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করলেন ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার

আব্দুল কুদ্দুছ বসুনিয়া,কাউনিয়া(রংপুর)থেকেঃ রাজশাহীস্থ ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার শ্রী মনোজ কুমার বুধবার দুপুরে কাউনিয়া উপজেলা …

কাউনিয়া টেপামধুপুর ইউনিয়ন পরিষদের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা

আব্দুল কুদ্দুছ বসুনিয়া,বিশেষ প্রতিনিধি, কাউনিয়া উপজেলার টেপামধুপুর ইউনিয়ন পরিষদের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা অনুষ্ঠান মঙ্গলবার দুপুরে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *