শনিবার , জুন ১৫ ২০২৪
Home / সারা দেশ / চিলমারীতে পুকুর খননে পুকুর চুরি সংশ্লিষ্টদের অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ

চিলমারীতে পুকুর খননে পুকুর চুরি সংশ্লিষ্টদের অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ

 

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ

কুড়িগ্রামের চিলমারীতে অনিয়ম আর দুর্নীতির মধ্য দিয়ে পুকুর খননে পুকুর চুরির অভিযোগ উঠেছে। খনন দেখানো হলেও অস্তিত্ব নেই পুকুরের। অভিযোগ উঠেছে দায়সারা ভাবে কাজ ও খনন না করে বরাদ্দকৃত অর্থ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আঁতাত করে হরিলুট করেছেন প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির সভাপতিসহ সংশ্লিষ্টরা। কাগজ-কলমে থাকলে বাস্তবে ভিন্ন। তদারকি নেই, উদ্যোগ চলছে শুধু লুটপাট। ভেস্তে যাচ্ছে প্রকল্পের উদ্দেশ্য। জানা গেছে, ২০১৯-২০ অর্থবছরে রংপুর বিভাগ মৎস্য উন্নয়ন প্রকল্প এবং জলাশয় সংস্কারের মাধ্যমে মৎস্য উন্নয়ন বৃদ্ধি প্রকল্পের আওতায় কুড়িগ্রামের চিলমারী উপজেলা মৎস্য অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধানে দারিদ্র্য বিমোচন, কর্মসংস্থান সৃষ্টি, জলাশয়ের জীব বৈচিত্র্য রক্ষা এবং মৎস্য আবাসস্থল উন্নয়নের লক্ষ্যে প্রায় ৪২ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়।
এ প্রকল্পর আওতায় উপজেলার চিলমারী ইউনিয়নের কড়াই বরিশাল আশ্রয়ন পুকুর খনন, পুনঃখনন প্রকল্পের জন্য ১৯ লাখ ৫০ হাজার টাকা দেয়া হলেও উক্ত এলাকায় পুকুর খনন না করেই খনন দেখানো হয়েছে বলেও রয়েছে ব্যাপক অভিযোগ। ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে ইউপি মেম্বার শহিদুল রহমান বলেন, কাগজে-কলমে থাকলেও উক্ত স্থানে কোনো খনন করা বা সংস্কার করা হয়নি।

এছাড়াও মনতলা আশ্রয়ন পুুকুর পুনঃখননের নামে ১৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা বরাদ্দ দেয়া হলেও সেই নামে কোনো আশ্রয়নের সন্ধান পাওয়া যায়নি। রমনা ইউপি পুকুর, ডুষমারা থানা পুকুর পুনঃখনন প্রকল্পে ৭ লাখ ৭০ হাজার টাকা বরাদ্দ দেয়া হলেও কর্তৃপক্ষের যোগসাজশে দায়িত্বশীলরা দায়সারাভাবে কাজ করে বেশির ভাগ টাকা আত্মসাৎ করেছেন বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ। এদিকে অভিযোগ উঠায় নিজেদের সাধু বানাতে বিভিন্ন কায়দায় সংশ্লিষ্টরা চেষ্টা ও তদবির করে টাকা উত্তোলন ও ঘটনা ধামাচাপা চেষ্টা করাসহ নামে মাত্র দায়সারা পুকুর খনন করে ঘোলা জলে মাছ স্বীকার করার চেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন। অভিযোগ অস্বীকার করে উপজেলা মৎস্য অফিসার বদরুজ্জামান মিঞা বলেন, কাজ আদায় করে নেয়া হয়েছে এছাড়াও যতটুকু কাজ হয়েছে সেই অনুযায়ী বিল করা হয়েছে। তবে অস্তিত্বহীন পুকুর পুনঃখনন দেখিয়ে টাকা আত্মসাৎ এর ব্যাপারে কোনো সঠিক উত্তর দেননি। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ ডব্লিউএম রায়হান শাহ্‌ বলেন, অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে এবং বিষয়টি ক্ষতিয়ে দেখা হবে।

About admin

Check Also

জলঢাকায় মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযানে ৮৪২ বোতল ফেন্সিডিলসহ ৩ শীর্ষ মাদক কারবারিকে গ্রেফতার র‌্যাব

রেখা মনি, বিশেষ প্রতিনিধি, রংপুরঃ নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার শেখমারী ইউনিয়নের মানিকগঞ্জ গ্রামে মাদক বিরোধী বিশেষ …

চিলমারীতে গলায় রশি দিয়ে বৃদ্ধের আত্মহত্যা

আলমগীর হোসাইন,  কুড়িগ্রামের চিলমারীতে গলায় রশির ফাঁস দিয়ে এক বৃদ্ধ আত্মহত্যা করেছে। ওই বৃদ্ধের নাম …

চিলমারী মডেল থানা পরিদর্শন করলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার 

চিলমারী  (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামের চিলমারী মডেল থানার সার্বিক কার্যক্রম সরেজমিনে পরিদর্শন করেছেন উলিপুর সার্কেলের অতিরিক্ত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *